মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সিটিজেন চার্টার

ক্রঃ

নং

সেবার নাম

দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা/কর্মচারী

সেবাপ্রদানের পদ্ধতি

সেবা প্রদানের প্রয়োজনীয় সময়

সেবা প্রদানের ফি

সংশিস্নষ্ট আইন বিধি বিধান

সেবা প্রদানে ব্যর্থ হলে প্রতিকারে: বিধান

 

০২

০৩

০৪

০৫

০৬

০৭

০৮

০১

বেতন বিল নিষ্পত্তি

উপজেলা একাউন্টস অফিসার,অডিট,

জুনিয়র অডিটর,এমএলএসএস

টোকেন কাউন্টারে জুনিয়র অডিটর বিলে টোকেন নং দিয়ে বিল অডিটরকে বুঝিয়ে দিবে। অডিটর বিলে পে-অর্ডার লিপিবদ্ধ করে সংশিস্নষ্ট রেজিষ্টারে এন্ট্রি করত: উপজেলা একাউন্টস অফিসারের নিকট প্রেরণ করবেন। বিল পাশ হওয়ার পর জুনিয়র অডিটর এডভাইস লিখবেন এবং স্বাক্ষরের জন্য উপজেলা একাউন্টস অফিসারের নিকট উপস্থাপনকরবেন। পাশকৃত বিল অনুযায়ী এডভাইস স্বাক্ষর হওয়ার পর বিল ও এডাভাইসে এম এল এস এস/জুনিয়র অডিটর এমেবাশসীল প্রদান করবেন। অত:পর এডভাইস রেজিষ্টারে এডভাইস এন্ট্রি দিয়ে এম এল এস এস সোনালী ব্যাংক ট্রেজারী শাখায় পৌছাবেন।  

২৫ তারিখের মধ্যে দাখিল সাপেক্ষপরবর্তী মাসের ১ম কর্মদিবসের মধ্যে

নাই

 

ডিভিশনাল

কন্ট্রোলার অব একাউন্ট

 

 

 

 

 

 

 

০২

বেতন নির্ধারণ

ইউএও,অডিটর

বেতন নির্ধারন সংক্রামত্ম আদেশ নির্দেশসহ বেতন নির্ধারণ বিবরণী, চাকুরী বহি/গেজেটেড অডিট রেজিষ্টারে প্রয়োজনীয় তথ্য লিপিবদ্ধক্রমে অডিটর উপস্থাপন করবেন। ইউএও কর্তৃক স্বাক্ষরিত হওয়ার পর অডিটর উহাতে নম্বর দিবেন।

প্রাপ্তির পর ১০ কর্মদিবসের মধ্যে

 

 

 

০৩

ছুটির হিসাব সংরক্ষণ

ইউএও,অডিটর

গেজেটেড অফিসারগণের চাকুরী সংক্রামত্ম তথ্যের ভিত্তিতে অডিটর অর্জিত ছুটি,ভোগকৃত ছুটি ইত্যাদি গণনা করে ছুটির হিসাব সংশিস্নষ্ট কর্মকর্তার ব্যক্তিগত নথি, গেজেটেড অডিট রেজিষ্টার ইত্যাদিসহ উপস্থাপন করবেন। ইউএও কর্তৃক সাক্ষরিরত হওয়ার পর অডিটর উহা সংরক্ষকরবেন।

 

 

 

 

০৪

এলপিসি ইস্যু/

প্রতিস্বাক্ষর করণ

ইউএও,অডিটর, জুঃ অডিটর,টাইপিষ্ট, এমএলএসএস

বদলীর আদেশ/দায়িত্ব হসত্মামত্মরপত্র ইত্যাদির ভিত্তিতে অডিটর/জুনিয়র অডিটর এলপিসি তৈরী করত স্বাক্ষরের জন্য সংশিস্নষ্ট রেজিষ্টারসহ ইউএও এর নিকট উপস্থপন করবেন। ইউএও কর্তৃক স্বাক্ষর হওয়ার পর মেমো নং যুক্ত করে রেজিষ্ট্রি ডাকযোগে প্রেরণ করবেন।

 

প্রাপ্তির পর ৭ কর্মদিবসের মধ্যে

নাই

 

০৫

সরবরাহ ও সেবা মেরামত ও সংরক্ষণ এবং অন্যান্য খাতের বিল পাশ

ইউএও,অডিটর, জুঃ অডিটর, এমএলএসএস

টোকেন কাউন্টারে বিল দাখিলের পর জুনিয়র অডিটর বিলে টোকেন নং প্রদান করত: বিল সমূহ অডিটর/সংশিস্নষ্ট জুনিয়র অডিটরকে প্রদান করবেন। অত:পর সংশিস্নষ্ট অডিটর/জুনিয়র অডিটর বিলে পে-অর্ডার লিপিবদ্ধ করতে সংশিস্নষ্ট রেজিষ্ট্রার, বরাদ্ধপত্র, মঞ্জুরীপত্র, ক্ষমতাপত্র ইত্যাদি সহ ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করবেন। ইউএও কর্তৃক বিল পাশ হওয়ার পর জুনিয়র অডিটর এডভাইস লিখবেন। পুনরায় এডভাইসহ পাশকৃত বিল সমূহ ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করবেন। এডভাইস স্বাক্ষরিকত হওয়ার পর এম এল এস এস বিল ও এডভাইস স্বাক্ষরিত হওয়ার পর এম এল এস এস বিল ও এডভাইস সোনালীর  ব্যাংকে পৌছাবেন।

প্রাপ্তির পর ৪ কর্ম দিবসের মধ্যে

নাই

 

ডিভিশনাল কন্ট্রোলার অব একাউন্টস

০৬

জিপিএফ অগ্রিম চুড়ামত্ম পরিশোধ

ইউএও,অডিটর, জুঃ অডিটর, এমএলএসএস

টোকেন কাউন্টার-টোকেন নং- অডিটর-ইউএও-জুনিয়র অডিটর-ইউএও-এমএলএসএস-সোনালী ব্যাংক

প্রাপ্তির পর ৩ কর্ম দিবসের মধ্যে

নাই

 

০৭

বিভিন্ন ঋণ ও অগ্রিম পরিশোধ

 

০৮

সিএও অফিসের অথরিটির ভিত্তিতে অনুদান ও প্রকল্পের ছাড়কৃত অর্থের বিল পাশ

ইউএও,অডিটর, জুঃ অডিটর, এমএলএসএস

টোকেন কাউন্টার-টোকেন নং- অডিটর-ইউএও-জুনিয়র অডিটর-ইউএও-এমএলএসএস-সোনালী ব্যাংক

প্রাপ্তির পর ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে

নাই

 

০৯

পেনশন ও আনুতোষিক পরিশোধ

ইউএ পেনশন কেইস বিশেষ ডায়েরী ভুক্ত করে অডিটরকে দিবেন।  অডিটর সংশিস্নষ্ট আদেশ/নির্দেশ সহ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করে অনুমোদনের জন্য ইউএও এর নিকট পেশ করবেন। ইউএও কর্তৃক স্বাক্ষরিত হওয়ার পর পেনশনার পিপিও গ্রহণ করবেন। উক্ত পিপিও এর ভিত্তিতে পেনশণার বিল তৈরী করে টোকেন কাউন্টারে পূর্বের ন্যায় বিল প্রাপ্য হবেন।

 

 

প্রাপ্তির পর ১০ কর্ম দিবসের মধ্যে

নাই

 

১০

উন্নয়ন ও অনুন্নয়ন বাজেটের ভিত্তিতে মাসের মাসিক হিসাব প্রণয়ন

ইউএও,অডিটর,

জুনিয়র অডিটর

সোনালী ব্যাংক হতে ব্যাংক স্কলসহ চালান ও পরিশোধিত ভাউচার পাওয়ার তারিখ অনুযায়ী ইউএও ১ (প্রাপ্তি) ইউএও-১ (প্রদান), ইউএও-২, ইউএও-৪,ইউএও-৫,ইউএও-৬, ইউএও-৭, ইউএও-৮, ইউএও-৯, ইউএও-১০,যথা নিয়মে প্রণয়ন করত: সিডিউল তৈরী করা, বিভিন্ন বিবরণী তৈরী করার পর তাহা ডিএও তে রক্ষত কম্পিউটারে এন্ট্রি দিতে হয়।

প্রতি মাসের ৫ তারিখের মধ্যে

নাই

 

১১

ভিডিও গণের হিসাবের সাথে ইউএও অফিসের মাসিক হিসাবের সংগতি সাধন

ইউএও,অডিটর,

জুনিয়র অডিটর

ডিডিওগণ প্রাতিষ্ঠানিক কোড ভিত্তিক ইউএও-৪এ তার উত্তোলিত বিল সমূহের পোষ্টিং দিয়ে মাসিক সমষ্টি নির্ণয় করত: উহা ইউএও অফিসে দাখিল করবেন। ইউএও অফিসের অডিটর/জুনিয়র অডিটর উভয় ইউএও-৪ মিলাইয়া দেখবেন।

 

নাই

 

১২

ব্যাংকের সাথে ইউএও অফিসের প্রাপ্তি ও প্রদানের রিকন

সিলিয়েশন

ইউএও,অডিটর,

জুনিয়র অডিটর

ইউএও-১,২ এর সাথে সরকারী হিসাব নং প্রাতিষ্ঠানিক কোড নং ভিত্তিক প্রাপ্তি ও প্রদানের সাথে ব্যাংক বিবরণী রিকনসিলিয়েশন করবেন।

প্রতি মাসের ৫ তারিখের মধ্যে

নাই

 

১৩

সরকারী কোষাগারে জমাকৃত অর্থের চালান ভেরিফিকেশন

অডিটর, জুনিয়র অডিটর

বাজেট বই ও শ্রেণি বিন্যাস চার্ট বই অনুযায়ী চালানে বর্ণিত কোডনং সঠিক আছে কিনা তা যাচাই করা

প্রাপ্তির সাথে সাথে

নাই

 

১৪

বিলে টোকেন নং প্রদান

জুনিয়র অডিটর

টোকেন কাউন্টারে উপস্থাপনের সাথে জুনিয়র অডিটর টোকেন রেজিষ্টারে ও বিলে টোকেন নং প্রদান করত:বিল অডিটরের নিকট উপস্থাপনের জন্য প্রদান করবেন।

 

১৫

পাশ করা বিলের এডভাইস লিখন ও ব্যাংকে প্রেরণ

জুনিয়র অডিটর,এম এলএসএস

ইউএও কর্তৃক বিল পাশ হওয়ার পর সংশিস্নষ্ট জুনিয়র অডিটর এডভাইস লিখে বিল ও এডভাইস স্বাক্ষরের জন্য ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করবেন। স্বাক্ষরিত হওয়ার পর এমএলএসএস উহাতে এমেবাশসীল দিয়ে ব্যাংকে পৌছাবেন।

বিল পাশ হওয়ার সাথে সাথে

নাই

 

১৬

জিপিএফ হিসাব নং খোলা, ব্রডশীট ও লেজার সংরক্ষণ

ইউএও, অডিটর জুনিয়র অডিটর

আবেদনপত্র পাওয়ার পর জুনিয়র অডিটর সংশিস্নষ্ট রেজিষ্টার ও স্বাক্ষরের জন্য ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করবেন।

 

 

 

প্রতি মাসের ৫ তারিখের মধ্যে

নাই

 

১৭

জিপিএফ সুদ গণনা সমাপ্ত জের নিরূপন

ইউএও, অডিটর জুনিয়র অডিটর

৩০ শে জুনের পর ব্রডশীট রেজিষ্টারের সাথে লেজারের মিল করার পর নির্ধারিত হারে সুদ প্রদান করত: প্রতিটি হিসাবের সমাপ্তি জের নির্ণয় করে শুদ্ধতা যাছাই ও স্বাক্ষরের জন্য ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করতে হয়।

প্রতি বৎসর ৩০ শে জুলাই এর মধ্যে

নাই

 

১৮

একাউন্টস সস্নীপ ইস্যু

জিপিএফ লেজার সমাপ্তি জের নির্ধারণের পর প্রতিটি চাঁদা দাতার জন্য একাউন্টস সস্নীপ তৈরী করত: প্রাতিষ্ঠানিক কোড ভিত্তিক রেজিষ্টারে নির্ধারিত ছকে লিপিবদ্ধ ক্রমে স্বাক্ষরের জন্য লেজারসহ ইউএও এর নিকট উপস্থাপন করতে হয়।

যথাযথ কর্তৃপক্ষর নির্দেশ অনুযায়ী

 

১৯

প্রজাতন্ত্রের হিসাব চুড়ামত্ম করণ

ইউএও,অডিটর,

জুনিয়র অডিটর

৩০ শে জুনের পর প্রজাতন্ত্রের সরকারী হিসাবের সকল আইটেম ১৩ অংকের কোড ভিত্তিতে নির্ধারিত ছকে চুড়ামত্ম করতে হয়।

যথাযথ কর্তৃপক্ষর নির্দেশ অনুযায়ী

নাই

 

২০

ঋণ ও অগ্রিমেরসুদ গণনা

৩০ শে জুনের পর সংশিস্নষ্ট ব্রডশীট রেজিষ্টারে প্রযোজ্য ক্ষত্রে গণনা করে আদায়েযোগ্য সুদের পরিমান নির্ধারণ করত: সংশিস্নষ্ট ঋণ গ্রহীতা/ডিডিও কে জানাতে হয়।

আসল টাকা আদায় হওয়ার পরপরই

 

২১

সিভিল অডিটর কর্তৃক উত্থাপিত অডিট আপত্তি নিষ্পত্তির ব্যবস্থা গ্রহণ

সিভিল অডিট অধিদপ্তর হতে অডিট রিপোর্টে পাওয়ার পর অনুচ্ছেদ ভিত্তিক জবাব যথাযথ কর্তৃপক্ষর মাধ্যমে সিভিল অডিট অধিদপ্তরে প্রেরণ করতে হয়। জবাব তৈরীর জন্য আদায়যোগ্য অর্থ আদায়ের কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়।

রিপোর্ট পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে জবাব সিভিল অডিট অধিদপ্তরে প্রেরণ নিশ্চিত করতে হবে।

 


Share with :

Facebook Twitter